khela-suru-bengali-web-series-klikk-myo
khela-suru-bengali-web-series-klikk-myo

‘খেলা শুরু(Khela Suru)’:

গত তিরিশে আগস্ট Klikk এ রিলিজ করা ওয়েব সিরিজ ‘খেলা শুরু(Khela Suru)’ প্রথম থেকেই একটু ব্যতিক্রম লাগছিল। প্রথমত, পরিচিত অভিনেতাদের এই প্ল্যাটফর্মের কোনো কনটেন্টে দেখতে পাওয়া বেশ দুর্লভ ব্যাপার। পরিচিত মুখ মানে সাধারণ দর্শকের পৌঁছে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। আর দ্বিতীয় ব্যাপার, সিরিজের বিষয় সুপারন্যাচারাল মিস্ট্রী থ্রিলার ড্রামা গোছের। একটা নির্দিষ্ট অতিপ্রাকৃত বিষয়কে ঘিরে গোটা ওয়েব সিরিজ ভারতীয় চলচ্চিত্রে কচ্চিৎ কদাচিতই দেখা যায়। তাই এই অবস্থায় প্রায় মুমূর্ষু প্ল্যাটফর্ম Klikk এর জন্য এই সিরিজ কিছুটা হলেও আশার আলো সঞ্চার করতে পারতো। কিন্তু খেলা একবার শুরু হওয়ার পর যে পরিস্থিতি ফুটে উঠলো তাতে চরম বিরক্তিতে দর্শকের স্টেডিয়াম ছেড়ে চলে যাওয়ার অবস্থাই হয়েছে।

Khela Suru

সৌপ্তিক চৌধুরী বা ‘Souptik C’ র পরিচালিত ‘খেলা শুরু(Khela Suru)’ র মুখ্য চরিত্রে দুই অভিনেতা ইন্দ্রাশীষ রায় ও রণিতা দাস। সিরিজের বিষয়বস্তু কি তা ট্রেলার দেখে বোঝা সম্পূর্ণ অসম্ভব। এবং ট্রেলার যেভাবে তৈরি করা হয়েছে তাতে অন্তত দেখার আগ্রহ তৈরি হয় না। কিছুটা অদ্রীশ বর্ধনের ‘চুল’ গল্পটির আঁচ পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু সিরিজ দেখতে বসে কিছুটা আলাদা লাগে। স্বভাবতই অপ্রত্যাশিত মনে হওয়ায়, দেখার আগ্রহ তৈরি হয়। কিন্তু পুরো ব্যাপারটার এক্সিকিউশন এতটাই বাজে, যে সমস্ত এপিসোড দেখে গল্পের শেষ দেখার আগ্রহ অব্দি চলে যায়।

প্রথমত, সুপারন্যাচারাল এর রীতিমত ডেইলি সোপ পরিবেশন করা হয়েছে। আলোচ্য বিষয় নিয়ে একটা 15 মিনিটের শর্ট ফিল্ম বানানো যেতে পারে; প্রায় আধ ঘন্টা করে নয়টি এপিসোড বানানো মূর্খামি, এবং দেখা চরম বিরক্তিকর। উৎসুক দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলবো, দেখতে হলে প্রতিদিন একটি করে এপিসোড দেখা যুক্তিযুক্ত। সিরিয়ালের অভিনেতাদের কে দিয়ে একটি ছোটো বিষয় কে টেনে বাড়িয়ে ডেইলি সোপের আকার দেওয়া হয়েছে।

দ্বিতীয়ত, বোধহয় এই সিরিজের জন্য নির্মিত মুখ্য সঙ্গীত বোধহয় ওয়েব নির্মাতা দের বড্ড বেশি পছন্দ হয়েছে। আজকের দিনে যেখানে সিনেমার শুরুতে লম্বা টাইটেল সরিয়ে ফেলার পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে, সিনেমার আমেজ ধরে রাখতে, সেখানে প্রতিটি এপিসোডের শুরুতে প্রায় 5 মিনিট ধরে টাইটেল কার্ডের সাথে গানটিকে শোনানো হচ্ছে। বাংলা ওয়েব সিরিজ কালচারে যেখানে ছোটো ছোট এপিসোড, চটজলদি শুরু, শেষ সেখানে এই ধরা প্রচণ্ড অসহ্য লাগে। এর পরেও যদি আপনি দেখা চালিয়ে যেতে পারেন তো যেভাবে গল্পকে পর্দায় রূপান্তর দেওয়া হয়েছে, প্রতি এপিসোডের শুরুতে কিছু বিদেশী অভিনেতাকে নিয়ে অদ্ভুত ক্যারিকেচার আর ওই জরাজীর্ণ স্টিরিওটাইপ বলিউডি সিনেমার ভুত বিশেষজ্ঞ কে ব্যবহার, বিশেষ ভালো লাগবে না।

‘খেলা শুরু(Khela Suru)’ এর মুখ্য চরিত্রাভিনেতা ইন্দ্রাশীষ রায় ও রণিতা দাস যথাযথ করেছেন, বিশেষ করে কিছু বলার নেই। আবহসঙ্গীত খুবই সাদামাটা, কোনো কৃতিত্ব নেই। আর ট্যারট কার্ড রিডার, ভবিষ্যত বক্তা, ভুত বিশেষজ্ঞর চরিত্রে সুজয়নীল সেই এক ভাবে অভিনয় করে গেছেন। না আলাদা করে তাকে কিছু দেওয়া হয়েছে, না তিনি আলাদা করে কিছু প্রয়োগ করেছেন। বলতেই হবে Klikk এর তরফ থেকে এই ‘খেলা শুরু(Khela Suru)’ সিরিজ চরম ব্যর্থতা ছাড়া আর কিছুই আনবে না।

Follow us on FacebookTwitter

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here